বন্ধ সিমের ব্যালেন্স নিয়ে নিচ্ছে বিটিআরসি

বন্ধ হয়ে যাওয়া সিমে থাকা অব্যবহৃত ব্যালেন্স হিসেবে থাকা অন্তত সাত কোটি ৩৪ লাখ টাকা বিটিআরসিকে ফেরত দিয়েছে গ্রামীণফোন।

২০০৮ সালের মে হতে ২০১৪ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ে অবৈধ ভিওআইপি’র দায়ে অভিযুক্ত জিপির ২৫ লাখ ৪২ হাজার সিম বন্ধ করে বিটিআরসি। বন্ধ হওয়ার সময় ওই সব সিমে ছিল মোট নয় কোাটি ৩৭ লাখ টাকার ব্যালেন্স।

যার মধ্যে জিপি ১৫ শতাংশ ভ্যাট হিসেবে আগেই এনবিআরকে দিয়েছে বলে বলছে। আরও ১০ শতাংশ তারা অন্যান্য ট্যাক্স হিসেবে কেটে রেখে বাকি টাকা বিটিআরসিতে জমা করল।

এদিকে এই টাকা ফেরত দেয়নি সেটি জানাতে সাত দিন সময় দিয়ে অন্য পাঁচ অপারেটরকে চিঠি দিয়েছে বিটিআরসি।

এর আগে গত ৩১ জানুয়ারি সব অপাটেরদেরকে চিঠি দিয়ে উল্লেখিত সাড়ে পাঁচ বছর সময়ে অবৈধ কল টার্মিনেশনে জড়িত থাকায় বন্ধ হওয়া সিমের ব্যালেন্স বিটিআরসিতে জমা দিতে নির্দেশনা দেয়।

কেবল জিপিই বিটিআরসির ওই চিঠিতে সাড়া দিয়ে টাকা জমা দিল।

অব্যবহৃত ব্যালেন্স জমা দেওয়ায় জিপি এখন এই ২৫ লাখ ৪২ হাজার সিম নতুন করে বিক্রি করতে পারবে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন বিটিআরসির সচিব সারওয়ার আলম। একই চিঠিতে জিপি তাদের নামে বরাদ্দ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া ০১৩ ব্যবহারের অনুমোদন চেয়েছে।

তবে সূত্র বলছে, বিটিআরসি জিপিকে এখনই সেই সুযোগ দেবে না। জিপি’র মোট অ্যাক্টিভ সংযোগ ৫ কোটি ৮০ লাখ। তবে তাদের বিক্রি করা নম্বরের সংখ্যা প্রায় দশ কোটি হয়ে গেছে।

Leave a comment

Kazi Hasan
 

A simple man

Click Here to Leave a Comment Below 0 comments

Leave a Reply: